বাংলাদেশী রাজনীতির সাম্প্রদায়িকতাকরণ ও হিন্দুদের মানসিকতা

সাম্প্রদায়িকতা নিয়ে অনেকে বড় বড় বুলি কপচায়।
বাংলাদেশে যে যত বড় রেসিষ্ট সাম্প্রদায়িক, সে নিজেকে তত বেশি প্রগতিশীল দাবী করে।
আওয়ামী লীগ পুলিশ প্রশাসন, বিচার ব্যাবস্থা আর জনপ্রশাসনকে গণহারে হিন্দুকরণ করেছে।
হিন্দুদের প্রতি কোন বিদ্বেষ নাই, কিন্তু যখন কেউ তার ধর্মের সুযোগে ফায়দা উঠাবে তা মেনে নেয়া যায় না।
ইন্টারনেটে গত কয়বছর ধরে ইসলামের বিরুদ্ধে যে ঘৃণ্য কার্যকলাপ হয়ে আসছে, তার পেছনে আছে কয়েকটা মাষ্টারমাইন্ড হিন্দু।
পশ্চিমবঙ্গ আর ইউরোপ থেকে এরা বাংলাদেশে ঘৃণা ছড়াচ্ছে।
মুসলিমরা এখন এর শিকার হচ্ছে।
চট্টগ্রামের জামালখানে গিয়েছিলাম শাহবাগি মঞ্চ দেখতে।
দলে দলে দিদি আর বউদিদের দেখে এক বন্ধুকে বলেছিলাম, ডাল মে কুছ কালা হ্যায়।
শাহবাগি পেজগুলো কয়েকদিন ফলো করেন, দেখবেন দত্ত রায় কুমার দাস চক্রবর্তীদের ছড়াছড়ি।
তাদের মৌসুম লেগে গেসে।
একাত্তর সাল থেকে এই সাম্প্রদায়িক হিন্দুগুলো অপেক্ষা করছিলো।
এদের দৌরাত্বে ভালো হিন্দুরা আজ সংখ্যালঘু, জায়নবাদী ইসরায়েলের দৌরাত্বে ঠিক যেভাবে ভালো ইহুদীরা সংখ্যালঘু।
এই হিন্দুদের আসল মানসিকতা হালকা কিছুটা দেখা যায় হিন্দু মেয়ের মুসলিম ছেলে বিয়ে করার ছবির মন্তব্যগুলোতে।
কুৎসিত যৌনতাবাদী হিন্দু, এমনকি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হয়েও ঐ মেয়েটিকে প্রশ্ন করে, কাটা পেনিসের মজা কি বেশি?
গুড জব সাম্প্রদায়িক হিন্দু ভাইলোগ! বাংলাদেশ তো এখন তোমাদের রামরাজত্ব।
দাশগুপ্তরা মহানন্দে দিয়ে যাচ্ছে, কারণ পেঁয়াজখেকো যবনের দলের চেয়ে বড় মুনাফিক সেবাদাস পৃথিবীতে আর কোথাও পাওয়া যাবে না।
Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s