আওয়ামী লিঙ্গ প্রদর্শন

একটা ছবি দেখলাম, প্রকাশ্যে পুরুষাঙ্গ প্রদর্শনের ছবি। এই বীরপুরুষটি মুজিবীয় আদর্শের এক সোনার সন্তান, হাসিনার মানসপুত্র।

সুপ্রিমকোর্টের সামনে বিরোধীদলীয় আইনজীবি আর বিক্ষোভকারী দলের প্রতি তার বিকট রঙ এর ক্ষুদ্রাকৃতি লিঙ্গটি দেখিয়ে সে কিছু একটা বলতে চাইছে। অব্যক্ত বক্তব্যের ঝাঁজে তার হাতে ধরা বাংলাদেশের পতাকাটি তার লিঙ্গ বরাবর মাটির দিকে নুয়ে আছে। হাতের পতাকা নুয়ে থাকলেও মাথায় পতাকাপট্টি বাঁধতে অবশ্য ভুল করেনি সে। পুরো দৃশ্যটা দেখে চিন্তায় পড়ে গেলাম, কি সেই মুল্যবান কথাটি যা সে বলতে চাইতেছে প্রাণপণে?

হয়তো সে বলতে চাইছে, এই যে দেখো এইটা আমাদের মুক্তিযুদ্ধের আসল হাতিয়ার। এইটা দিয়াই আম্রা তোমাদের মা বোনদের ঠান্ডা করি।

অথবা হয়তো সে বলতে চাইছে, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে গেলে জাফর ষাড়ের চেতনার মালিশে এইটা বড়ো হয়। বিরোধীদলীয় পুরুষদেরকে সে একটা ডেমোনেষ্ট্রেশন দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে আসতে উৎসাহিত করছে। দুঃখের বিষয় হলো তার নিম্নাঙ্গটি আন্ডারসাইজড হওয়াতে বিজ্ঞাপন ফ্লপ।

অথবা তার বক্তব্য শুধুমাত্র লিঙ্গ নির্ভর নয়, বরং এখানে পতাকাটিরও একটা ভূমিকা আছে। সে হয়তো বলতে চাইছে এই অঙ্গ দিয়ে আমরা পতাকা দাড় করিয়ে রাখি। হু হু। এই মুহুর্তে নুয়ে আছে ঠিকই কিন্তু শাহবাগে গেলে পতাকা দাড়িয়ে যায়। আম্রা মুক্তিযুদ্ধের পতাকা সমুন্নত রাখবো মুজিবসেনা। হু হু।

যাইহোক, আসল মেসেজটা কি তা জানার জন্য আমাদেরকে যেতে হবে শেখ হাসিনার কাছে। আমার দৃঢ় বিশ্বাস এই কাজের হুকুম তিনিই দিসেন। সুতরাং তিনিই জানেন কি বলতে চান তিনি এই হতভাগা জাতির উদ্দেশ্যে।

Advertisements