মুক্তিযুদ্ধের চেতনা রেফারেন্সিং ক্যাটাগরি প্রসঙ্গে

যারা রিসার্চ করেন, তারা জানেন রিপোর্টের মধ্যে রেফারেন্সিং না থাকার অর্থ হলো শরীরের মধ্যে প্রাণ নাই। জিনিসটার গ্রহণযোগ্যতা ও কার্যকারিতা দেখে পাবলিকও কথাবার্তায় রেফারেন্সিং শুরু করসে। যেমন, শাহরিয়ার কবির। উনি এতো অথেনটিক মানুষ যে রেফারেন্সিং ছাড়া কথাই বলেন না। আম্রা উনার রেফারেন্সিং এর বিষয়টা একটু খতিয়ে দেখবো। তার আগে সংক্ষেপে দেখা যাক রেফারেন্সিং সাধারণত কেমনে হয়।

খাঁটি রেফারেন্সিং – এরা বিভিন্ন রেফারেন্স পড়ে, নোট করে বা খেয়াল রাখে। তারপর সূত্র উল্লেখ করে। আর বেশি কিছু বলার নাই।

বাটপার রেফারেন্সিং – এরা একটা বই/সোর্স এ উল্লেখ করা রেফারেন্স মেরে দেয়। যেমন, চার্লস ডানিয়েল তার বইয়ে মুজিবের জানাযা নিয়ে লিখসে, ঘটনার রেফারেন্স দিসে মাইকেল হপকিন্স, উইলিয়াম সিজন এবং এন্থনি মাসকারানহার্স এবং প্রত্যক্ষদর্শী ছবুর পাগলার। আমান আবদুহু তার রিসার্চ পেপারে সবার রেফারেন্স দিসে, আসলে ডানিয়েলেরটা ছাড়া কিন্তু কোনটা পড়েনাই দেখেওনাই। কপি পেষ্ট কইরা সেকেন্ডারী সোর্সকে প্রাইমারী বানায়া দিসে। Continue reading

Advertisements

আবু রেজা নদভিঃ জামাতি? না কি আওয়ামী?

আবু রেজা মুহাম্মদ নিজামুদ্দিন নদভি এক বিস্ময় মানব, জীবন্ত এক কিংবদন্তী। চট্টগ্রাম সাতকানিয়ার এক দরিদ্র মাদ্রাসা শিক্ষক মওলানা ফজলুল্লাহর ছেলে। এককালে মাদ্রাসার লিল্লাহ ফান্ডের খরচে তার পড়ালেখা ও হোষ্টেলে থাকা খাওয়া চলতো। আর আজ আবু রেজা নামে ও বেনামে হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক। বিলাসবহুল বাড়ি, গাড়ি বহর, বাগানবাড়ি, রক্ষিতা ও ঘেটুপুত্রের দল, আন্তর্জাতিক কানেকশন। একটা এনজিও ছাড়া তার কাগজে কলমে কোন উপার্জনের উৎস নেই, আর তার সম্পদেরও সীমা নেই এখন।

আবু রেজার নেটওয়ার্ক, এমন যোগাযোগ ও প্রতিপত্তি বাংলাদেশের অনেক মন্ত্রীরও নেই। আবু রেজার টাকার উৎস বিদেশ, টাকা থেকে মুনাফা জেনারেটও হয় বিদেশ সংক্রান্ত উপার্জন থেকে। অস্ত্র ও মানব (নারী ও শিশু পাচার) ব্যাবসায় আবু রেজা লগ্নি করে, কিন্তু সরাসরি জড়িত হয় না। নিজের ব্যাক্তিগত বিষয়কে মিডিয়া ও লোকচক্ষুর আড়ালে রাখতে আবু রেজা সবসময়ই সচেতন থেকেছে। শেখ হাসিনা তাকে যথাযথ কারণ ছাড়া নমিনেশন দেয়নাই। তার এই অদ্ভুতভাবে উপরে উঠার মূলকথা একটাই, যে দেবতা যেই ফুলে সন্তুষ্ট, আবু রেজা ঠিক সে ফুল দিয়েই সে দেবতার পুজা করে। কোন মানুষটা কি পেলে খুশী, তা বের করায় তার সমকক্ষ মানুষ তেমন একটা নাই। Continue reading